বিনিয়োগ সংক্রান্ত তথ্য বাতায়ন, পর্ব – ৩

বিনিয়োগ কি:

সাধারণত আমরা জমিজমা, ঘরবাড়ি, ভোগ্যপণ্য, সেবা বা ব্যবসা-বাণিজ্যে অর্থ ব্যয় করাকে বিনিয়োগ বলে মনে করি। যেহেতু এ বিনিয়োগ প্রকৃত উৎপাদন বৃদ্ধিতে সহায়তা করে না। সেহেতু অর্থনীতিতে এ ধরনের ব্যয়কে বিনিয়োগ নামে অভিহিত করা হয় না। কেননা এটা সম্পদের স্থানান্তর ছাড়া আর কিছুই না। অর্থাৎ একজনের সম্পদ অন্য জনের কাছে স্থানান্তর মাত্র। আসলে এগুলো হলো দৈনন্দিন জীবনের চলার পথের আনুষঙ্গিক ব্যয় বা অর্থনীতির পরিভাষায় প্রত্যক্ষ ব্যয়।

আসলে অর্থনীতিতে বিনিয়োগ বলতে বোঝায় নতুন মূলধন দ্রব্যের উৎপাদনে অর্থ লগ্নি করা। অর্থাৎ সমাজে নতুন মূলধন দ্রব্য সৃষ্টিকেই বিনিয়োগ বলা হয়। সাজিয়ে গুছিয়ে বললে এভাবে বলা যাই,

লগ্নি করা অর্থের দ্বারা ভোগ্যপণ্য বা সেবা উৎপাদনের নিমিত্তে দেশে নতুন কলকারখানা, যন্ত্রপাতি প্রভৃতির উদ্ভব হলে এবং আয় ও কর্মসংস্থান বাড়লে তবেই তাকে বিনিয়োগ বলা হয়।

প্রখ্যাত ব্রিটিশ অর্থনীতিবিদ জন মেনার্ড কেইনসের মতে, ‘পূর্বের মূলধন দ্রব্যের সঙ্গে নতুন মূলধন দ্রব্যের সংযোজনই হলো বিনিয়োগ।’

ধরুন আপনি, আইএসপি (ISP) ব্যবসার উদ্দেশ্যে বিষ লাখের মতো অর্থ লগ্নি করলেন এতে ৫০ জন লোকের কর্মসংস্থান সৃস্টি হলো পাশাপাশি আইএসপি ইন্ডাস্ট্রীর বৈপ্লবিক সেবায় দেশ আধুনিক ইন্টারনেট সুবিধা পেয়ে তথ্য ও প্রযুক্তিতে ব্যাপক উন্নতি সাধন করলো। তাহলে, অর্থনীতির পরিভাষায় আপনার লগ্নি করা অর্থ হলো বিনিয়োগ।

আইএসপি (ISP) ব্যবসা বা যেকোনো ব্যবসায় বিনিয়োগকারীদের সহায়িকা পরামর্শ সমূহ নিম্নরূপ:
১) অবশ্যই আয়-ব্যয়ের সাথে সামঞ্জস্য রেখে বাজেট ও আর্থিক পরিকল্পনা করুন।
২) আইএসপি (ISP) ব্যবসা বা বিভিন্ন বিনিয়োগ পণ্য ও খাতের ঝুঁকি সম্পর্কে জানুন।
৩) পর্যাপ্ত বিচার-বিশ্লেষণ করে বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত নিন।
৪) বিনিয়োগ সংক্রান্ত সকল আইন-কানুন সম্পর্কে অবগত হন।
৫) সচেতনতার সাথে বিনিয়োগ সংক্রান্ত বিধি-নিষেধ মেনে চলুন।
৬) ব্যবসা যেহেতু আপনার, তাই আপনি নিজে বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত নিন নতুবা প্রয়োজনে পেশাদার বিনিয়োগ বিশ্লেষকের সহায়তা নিন।
৭) অবশ্যই আপনার আর্থিক পরিকল্পনা অনুযায়ী বিভিন্ন ধরনের বিনিয়োগের মেয়াদ নির্ধারণ করুন।যেমন, দুই বছর আর্থিক পরিকল্পনা অনুযায়ী বিনিয়োগ করবেন, তৃতীয় বছর থেকে থেকে আপনার লাভ আসবে বা ব্রেক ইভেন (Breakeven) ঘটবে।
৮) যদি ব্যাঙ্ক বা অন্য কোনো আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণ গ্রহন করতে চান, তাহলে ঋণ গ্রহনের পূর্বে আপনার ঋণ পরিশোধের সঙ্গতি এবং ঋণের শর্তসমূহ বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নিন।
৯) সময়মত বিনিয়োগ এবং ব্যবসা পরিচালনার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করুন।

আইএসপি (ISP) ব্যবসার লগ্নিতত্ত্ব:

এবার আসি লগ্নিতত্ত্বে। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন জাগবে এই ব্যবসায় কত বিনিয়োগ করতে হবে। পুঁজি কত লাগবে তা ঠিক হবে আপনার প্রাথমিক প্লানের উপর। সহজ কথায় বললে, বিনিয়োগ বা পুঁজি কত লাগবে সেটা নির্ভর করবে আপনি কত কিলোমিটার এলাকায় লাইন টানবেন বা আপনার কাভারেজ এলাকা কতটা বিস্তৃত হবে তার উপর।

যন্ত্রপাতি ও লাইসেন্স করার জন্য লাগবে ৮০,০০০-৯০,০০০ টাকা। এর মধ্যে কম্পিউটার ২৫,০০০-৩০,০০০ টাকা, আর যদি আপনার কম্পিউটার থাকে তাহলে তো সোনায় সোহাগা ও মাইক্রোটিক রাউটার ৩৬,০০০-৪০,০০০ টাকা। যদি আরো ভালো চান এর চাইতেও বেশি দামের মাইক্রোটিক রাউটার আপনারা বাজারে পাবেন। সেই সাথে, মিডিয়া কনভার্টার ৪৫০০ টাকা, সুইচ বক্স ও কানেকশন পোর্ট প্রতি কিলোমিটার লাইনে ১০,০০০ টাকা, ক্যাবল প্রতি কিলোমিটার ১২,০০০ – ১৩০০০ টাকা, লাইসেন্স ফি ১০০০ টাকা, কানেকশন ফি ১০,০০০-২০,০০০ টাকা, ব্যান্ডউইথ প্রতি মেগাবিট ১০০০-৩০০০ টাকা এবং অন্যান্য যন্ত্রপাতি ও রক্ষণাবেক্ষণ বাবদ ১০০০০০ টাকার মতো।

আপনাদের জ্ঞাতার্থে জানাচ্ছি, বিটিসিএল থেকে নিলে প্রতি মেগাবিট ব্যান্ডউইথের দাম পড়বে ২৮০০ টাকা, বেসরকারি আইআইজি (IIG) এর নিজস্ব লাইন থেকে নিলে দাম পড়বে ১০০০-১৮০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাবে।আপনি যদি মফস্বল বা গ্রামে ব্যবসা করতে চান, তবে উপরিল্লিখিত দুইটা অপশন না থাকলেও হতাশ হওয়ার কারণ নেই। যেহেতু মোবাইল অপারেটরদের ৩জি নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণের কারণে এখন গ্রাম পর্যায়েও অপটিক্যাল ফাইবার পৌঁছে গেছে। আপনি চাইলে মোবাইলের টাওয়ারের বিটিএস থেকে মেগাবিট কিনতে পারবেন। সেক্ষেত্রে দামটা একটু বেশি পড়বে। মোবাইলের টাওয়ারের বিটিএস থেকে নিলে প্রতি মেগাবিট পড়বে ৩০০০-৫০০০ টাকা।

শুরুতে মোটামুটি আপনি ১০ এমবি ব্যান্ডউইথ আর ৪ কিলোমিটার লাইন টেনে ৫০০,০০০-৬০০,০০০ টাকার মধ্যেই এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন। পুঁজি আরো কম হলে এর এক তৃতীয়ংশ কম বিনিয়োগে অন্তত ২ কিলোমিটার কাভারেজ লাইনে ৫ এমবি ব্যান্ডউইথ দিয়ে শুরু করতে পারেন। পরে ব্যবসা বাড়লে অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা নিবেন। এক্ষেত্রে পুনর্বিনিয়োগ করে আপনি ধাপে ধাপে আপনার ব্যবসার বিস্তৃতি করতে পারবেন। এটা নূন্যতম বিনিয়োগে ব্যবসা শুরুর পরিকল্পনা মাত্র। এর পরের পর্বে আমারা আপনাদের ১০০ জন গ্রাহক নিয়ে ব্যবসা শুরু করার সম্পূর্ণ আদর্শ লগ্নি পরিকল্পনা জানাবো।


www.jbrsoft.com
www.isperp.org


admin